Monday , February 26 2024
Breaking News

অনভিজ্ঞ ব্যক্তিকে কাজ দিতে পদে পদে নিয়ম লঙ্ঘন

সারোয়ার সুমন, চট্টগ্রাম

অভিজ্ঞতা ও নিরাপত্তা সরঞ্জাম না থাকার পরও ইকরাম উদ্দিন ফরহাদ নামের এক ব্যক্তিকে জাহাজ পরিচালনার মতো স্পর্শকাতর কাজ দিয়েছে বিআইডবি্লউটিসি। ঘাটে কমিশন এজেন্ট নিয়োগ করার আগে নিয়ম অনুযায়ী প্রতিযোগিতামূলক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করতে হয়। একাধিক আগ্রহী পাওয়া গেলে অভিজ্ঞ ও সর্বোচ্চ জামানত রাখা ব্যক্তিকে ‘বোট কন্ট্রাক্টর ও কমিশন এজেন্ট’ নিয়োগ দেওয়ার কথা। অথচ চট্টগ্রাম-সন্দ্বীপ রুটে বিআইডবি্লউটিসির জাহাজ পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়া ইকরাম উদ্দিনের ক্ষেত্রে এসবের কোনোটিই মানা হয়নি। জাহাজ পরিচালনার আগে তিনি পোশাক কারখানার সরঞ্জামের ব্যবসা করতেন বলে জানা গেছে। গত ২ এপ্রিল কুমিরা-গুপ্তছড়া রুটে নৌকাডুবির ঘটনায় ১৮ জনের প্রাণহানি হয়। ওই ঘটনায় জাহাজ পরিচালনায় কোনো গাফিলতি ছিল কি-না, তার তদন্ত হচ্ছে।

বিআইডবি্লউটিসির দাবি, স্থানীয় এমপি মাহফুজুর রহমান মিতার সুপারিশের কারণেই ওই ব্যক্তিকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই ব্যক্তি পরবর্তী সময়ে কুমিরা-গুপ্তছড়া রুটে জাহাজ ভাড়া নেওয়ার প্রস্তাব দিলে তাতেও সম্মতি দেন তারা। অবশ্য এমপি মাহফুজুর রহমান সুপারিশ করার কথা স্বীকার করলেও বিআইডবি্লউটিসিকে কোনো নিয়ম লঙ্ঘনের অনুরোধ করেননি বলে জানান।

মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘আমার উদ্যোগেই সদরঘাট থেকে গুপ্তছড়ার নতুন রুট চালু হয়। এ রুটের জন্য ইকরাম উদ্দিন ফরহাদকে আমি ডিও লেটার দিয়েছিলাম। কিন্তু কুমিরা-গুপ্তছড়া রুটের জন্য আমি তাকে সুপারিশ করিনি।’ গার্মেন্ট ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিকে কেন স্পর্শকাতর নৌরুট পরিচালনার জন্য সুপারিশ করলেন_ এমন প্রশ্নের জবাবে মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘আগ্রহী অন্য কোনো প্রতিষ্ঠান ছিল না। তা ছাড়া ব্যবসায়ী হিসেবে সে পূর্বপরিচিত ছিল। দায়িত্ব পাওয়ার পর সে নৌকাসহ আনুষঙ্গিক কিছু সরঞ্জামও কিনেছিল। কিন্তু জেলা পরিষদের আরেকজন ইজারাদার থাকায় ঘাট পরিচালনায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হয়।’

অনুসন্ধানে দেখা গেছে, জাহাজ পরিচালনার মতো স্পর্শকাতর কাজটি দিতে কখনোই নিয়ম অনুসরণ করে না বিআইডবি্লউটিসি। এমপি কিংবা উপজেলা চেয়ারম্যানের সুপারিশ নিয়ে দলীয়ভাবে প্রভাবশালী ব্যক্তিরা হচ্ছেন তাদের কন্ট্রাক্টর কিংবা কমিশন এজেন্ট। নিয়ম অনুযায়ী ঘাট পরিচালনার আগে জমা রাখতে হয় নির্ধারিত অঙ্কের জামানত। নূ্যনতম পাঁচ লাখ টাকা জামানত রাখার কথা থাকলেও ইকরাম উদ্দিন দিয়েছেন চার লাখ টাকা। জামানতের টাকা না দিতেও রাজনৈতিক প্রভাব খাটানো হয় বলে জানিয়েছেন বিআইডবি্লউটিসির এক কর্মকর্তা।

প্রসঙ্গে বিআইডবি্লউটিসি চট্টগ্রাম অঞ্চলের ব্যবস্থাপক (যাত্রী) ফয়সল আলম চৌধুরী বলেন, “অপ্রিয় হলেও সত্য, স্থানীয়ভাবে প্রভাবশালী ব্যক্তি না হলে বিআইডবি্লউটিসির কাজ পান না কেউ। স্থানীয় প্রশাসন ও এমপির সুপারিশ থাকায় সদরঘাট-গুপ্তছড়া রুটে জাহাজ পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছেন ইকরাম উদ্দিন ফরহাদ। পরবর্তী সময়ে কুমিরা-গুপ্তছড়া রুটে চলা ‘এসটি সালাম’ নামে সি-ট্র্যাকটিও ভাড়া নিয়ে পরিচালনা করে সে।”

এসব ব্যাপারে কমিশন এজেন্ট ইকরাম উদ্দিন ফরহাদ বলেন, ‘জাহাজ পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়ার পর বিআইডবি্লউটিসির সাবেক কমিশন এজেন্ট জাহাঙ্গীরের কাছ থেকে তিনটি কাঠের নৌকা কিনে নিই। কিন্তু জেলা পরিষদের ঘাট ইজারাদার আনোয়ারের বাধায় এসব নৌকা পরিচালনা করতে পারছিলাম না। তিনটি নৌকার একটি এরই মধ্যে নষ্ট হয়ে গেছে। নষ্ট হওয়ার পথে আছে অন্য দুটিও। আবার জামানত দিয়ে বোট কন্ট্রাক্টর ও কমিশন এজেন্ট হলেও গত ডিসেম্বর থেকে সদরঘাট-গুপ্তছড়া রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ হয়ে আছে। লোকসান কমাতে কুমিরা-গুপ্তছড়া রুটে থাকা সি-ট্র্যাকটি ভাড়া নিই। কিন্তু এখান থেকে যাত্রী ওঠানামা করাতেও প্রতিবন্ধকতার মুখোমুখি হচ্ছি। ঘাট ব্যবসায় যুক্ত

হয়ে আমার এখন ফকির হওয়ার দশা হয়েছে।’

নৌ দুর্ঘটনায় ১৮ জনের প্রাণহানিতে নিজের দায় অস্বীকার করে ইকরাম উদ্দিন ফরহাদ বলেন, ‘সি-ট্র্যাক থেকে যাত্রী নৌকায় করে তীরে নামানোর দায়িত্বে আমি ছিলাম না। জেলা পরিষদের ইজারাদার আনোয়ার চেয়ারম্যানের সঙ্গে সমঝোতা করে এটি পরিচালনা করছিলেন আগের কমিশন এজেন্ট মাহমুদুর রহমান মান্না। দুর্ঘটনার জন্য কে দায়ী, সেটি খুঁজে বের করবে তদন্ত কমিটি।’

জাহাজ পরিচালনার পূর্ব কোনো অভিজ্ঞতা ছিল না গার্মেন্ট অ্যাক্সেসরিজ ব্যবসায়ী ফরহাদের। তার একসময়ের ব্যবসায়িক পার্টনার ছিলেন সন্দ্বীপ উপজেলা চেয়ারম্যানের মেয়েজামাই জমির হোসেন। তিনি বলেন, “ফরহাদকে নিয়ে আমাদের ‘আপওয়া ট্রেডার্স’ নামে একটা যৌথ ব্যবসা ছিল। ২০১১ সালে গার্মেন্ট অ্যাক্সেসরিজের এ ব্যবসা শুরু করলেও ২০১৩ সালের দিকে সে এটি গুটিয়ে ঘাট ব্যবসার দিকে মনোযোগ দেয়। সন্দ্বীপের পাশাপাশি সে কক্সবাজারেও পর্যটন জাহাজের ব্যবসা পরিচালনা করছে।”

information & picture

– See more at: http://bangla.samakal.net/2017/04/10/284040#sthash.tDjZgJAF.dpuf

About tvsandwip

Check Also

দ্বীপবন্ধুকে ছাড়িয়ে গেলেন ছেলে দ্বীপরত্ন : এমপি মিতার হ্যাট্রিক বিজয়

খাদেমুল ইসলাম, সন্দ্বীপ(চট্টগ্রাম) প্রতিনিধি, ২৩:১৭ পি.এম দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় আজ বরিবার। চট্টগ্রাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *